আসছে ১৪ই ফেব্রুয়ারী বেহায়া দিবস!

আসছে ১৪ই ফেব্রুয়ারী বেহায়া দিবস!


.
✒এই দিন,কিছু মেয়ে ধর্ষিত হবে!
✒কিছু মেয়ে লাঞ্চিত হবে!
✒কিছু মেয়ে তালাক প্রাপ্ত হবে!
✒কিছু মেয়ে ইজ্জত হারাবে!
✒কিছু মেয়ে সতিত্ত্ব হারাবে!
✒কিছু মেয়ে বেশ্যা হবে!
✒কিছু মেয়ে অবৈধ গর্ভপাত করবে!
✒কিছু মেয়ে মা বাবার স্বপ্ন ভেঙ্গে দুই
মিনিটের সুখের জন্য কারো লালসার
শিকার হবে!
.
এক কথায় মুসলিম যুব সমাজকে ধ্বংস করার
অতীব ষড়যন্ত্রের বর্তমান রূপ হচ্ছে এই বিশ্ব
ভালবাসা বা বিশ্ব বেহায়া দিবস।আল্লাহ্
পাক আমাদের সবাইকে ১৪ই ফেব্রুয়ারী
বেহায়া দিবস থেকে হেফাজত
করুন,আমিন।।
14-ই ফেব্রুয়ারী ধর্ষনের শিকার হবে
হাজার হাজার বোনেরা
.
ভালোবাসার ফাঁদে ফেলে একবার
বিছানা কিংবা হোস্টেলে নেওয়া মানেই
ধর্ষিতা বোন।
.
বিছানায় নিয়েই ছবি তোলার কৌশল,
যদি ছবি তুলতে না দেওয়া হয়।
ছেলেটার ভিতরে মাসুম মনভাব জন্মায়,
আমি তো তোমাকেই ভালোবাসি, তোমাকেই
বিয়ে করবো জান,
তাহলে ছবি তুলতে সমস্যা কি? আর আমার
যখন
তোমাকে
দেখতে ইচ্ছে করবে আমি কি করবো তখন?
আমি কি সবসময় তোমার কাছে ছুটে আসবো?
যখন ইচ্ছে হবে আমার জানটাকে একটু
দেখবো।
দেখেই ডিলিট করে দিব, কাউকে দেখাবো
না।
.
এ কথা শুনে প্রমিকা ভাবে না জানি ও
আমাকে
কত ভালোবাসে।
ছবি তুললে কি আর হবে ওতো আমাকেও
ভালোবাসে।
.
মেয়েটা কি জানে সে সবচাইতে
বড় বিপদের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে?
.
তার পর অনেক কিছু
ভিডিও মোবাইলে দৃশ্য যেন অর্ধনগ্ন
সর্টফিল্ম,
.
কিছুদিন পরে অনৈতিক
কাজের প্রস্তাব করলে মেয়েটা
রাজি না হলে
সরাসরি হুমকি
গোপন সব ফাঁস..।
.
মেয়েটা বাধ্য হয়ে রাজি হয়
(হোক সে যত বড়
ফ্যামিলির মেয়ে)
কি আর করার বাধ্য
হয়ে শরীর বিসর্জন দিতে হয়।
.
শরীর বির্সজন দিয়েও শেষ
হয়না তার ভয় বরং বেড়ে
যায় তার ভয়।
.
একসময় দেখা যায় বড় অংকের টাকা
আদায়ের জন্য হুমকি দেওয়া হয়।
সম্মানের দিক
টাকা কিংবা শরীর বিসর্জন
দিতে অস্বীকার করায়
চলে যায় তাদের ভিডিও অশ্লীল ছবি ও
ভিডিও চিত্র
মানুষের
হাতে চলে যাচ্ছে, ,,,,,,,,
.
শুধু
সন্মানের জন্য
নীরবে এইসব সহ্য
করছে। লজ্জাকর
পরিস্থিতি তে অনেক
বোন
নীরবে আত্মহননের
পথ বেছে নিচ্ছে।
.
আমার এই
লেখাটাতে সামান্য
অশ্লীলতা থাকতে পারে সেই
জন্য
আমি দুঃখিত। ভুল হলে ক্ষমা
দৃষ্টিতে দেখবেন
ক্ষমাপ্রার্থী।
.
আসছে আগামী 14ই ফেব্রুয়ারী বিশ্ব
ভালোবাসা দিবসে,
আপনার বোনকে হেফাজত করার দায়িত্ব
আপনার।
১৪ই ফেব্রুয়ারি… ,,,,,,,, আপনি কি দেখা করতে
যাবেন/ গেছেন?কার হাত ধরতে যাচ্ছেন?সে
মানুষতো?যা করতেছেন,আপনি কি শিওর তাকে
আপনি পাবেন…নিজেকে কেন নষ্ট করছেন?
আপনি কি ভুল করতে যাচ্ছেন???একটু ভেবে
দেখুনতো???বাবা মাকে ধোকা দিচ্ছেন নাতো?
যারা আপনাকে এতোটা বছর লালন পালন করেছে।।
কথা শিখিয়েছে,হাসতে শিখিয়েছে.,,,আপন কাঁদলে
যারা আপনাকে বুকে টেনে নিতো।।।মিথ্যা
লোভে পরে তাদেরকে ধোকা দিচ্ছেন
নাতো??…. সাবধান,,কিছু করার আগে চিন্তা করুন কি
করছেন!!!!না বুঝলে ভালো কারো কাছ থেকে
পরামর্শ নিন!! বাঁচতে পারে আপনার সুন্দর জীবন!!!..
ভালোবাসার দোহাই দিয়ে যে আপনার হাত ধরতে
চায়,,,,খারাপ চোখে তাকায়,,,,,,,,নি
শ্চিত থাকুন। সে
আপনাকে ভালোই বাসে না,, ,,,,, তার চাহিদা মিটানোর
জন্য আপনার সাথে সামান্য কৌতুক করছে মাত্র,,,,,, তা
ছাড়া আর কিছুই নয়,,,,,,,,,,,,,
,,,,ভালোবাসা এটা নয় যেটা
আপনাকে নষ্ট করে,,,,,,,,,,,,,,, ,, ,.নোংরামি থেকে
দুরে থাকুন।,,,,,,,,,

Advertisements

One thought on “আসছে ১৪ই ফেব্রুয়ারী বেহায়া দিবস!

Leave a Reply