“প্লিজ, আওয়াম মানুষের তাবলীগকে কলংকিত করবেন না।”

ফেসবুকে, পএিকায় আসলেই দেখা যায় নছিহতের পোষ্টে ভরপুর, ওলামাদের সমালোচনা করবেননা,ওলামাদের বিরুধীতা করবেননা।

অমুক দল ওলামা বিদ্ধেশী।
অমুক দল ওলামাদের সমালোচনা কারী।
আলেমের বিপক্ষে কথা বলতে জবানকে হেফাজত করুন।
সুন্দর পরামর্শ,ভাল পরামর্শ,আমলযোগ্য নছিহত। সবারই এ ব্যপারে খেয়াল রাখা উচিত যেন অসৎকাজের নিষেধ করতে গিয়ে প্রকৃত আলেমদের সম্মানহানি না হয়।
আলেমদের ইজ্জতের উপর যেন আঘাত না আসে।

যাদের কাছে সামান্যতম দ্বীনের বুঝ আছে তারাও ওলামাদের সম্মান,ইজ্জতের ব্যপারে হুশিয়ার থাকেন।এ ব্যপারে সবচেয়ে যারা এগিয়ে আছেন তারা হলেন দাওয়াত ও তাবলীগে সময় লাগানো আওয়াম ইংরেজি শিক্ষিতরা।
এবং প্রকৃত ওলামায়ে কেরামও আওয়ামদেরকে দ্বীল থেকে মহব্বত করেন এবং শরীয়তের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়ে থাকেন।
কিন্তু ইদানিং কিছু নামধারী ওলামা আওয়ামদেরকে যাচ্চেতাই বলে যাচ্ছেন।যেমন,ইহুদীদের দালাল,মোসাদের এজেন্ট,মুনাফিক ইত্যাদি ইত্যাদি।
আমি এই নামধারী,দুনিয়ালোভী ওলামাদেরকে বলতে চাই,আপনারা আপনাদের জবানকে হেফাজত করুন।এই আওয়ামরা আপনাদের শত দোষকে ঢেকে রেখে শুধুমাত্র এলেমের কারনে আপনাদেরকে সম্মান করেন,ইজ্জত করেন।
এদেরকে প্রতিপক্ষ বানালে নিজেদেরই ক্ষতি করবেন।

এই আওয়ামরাই আপনাদের আব্বা,ভাই,দাদা,চাচা,মামা।
এই আওয়ামরাই আপনাদেরকে আলেম বানানোর জন্য সর্ব লাইনে মেহনত করেছে,সহযোগীতা করেছে।

এরাই আপনার বাবা,মাকে বুঝিয়ে আপনাকে মাদ্রাসায় ভর্তি করেছে।

আপনি যেসব মাদ্রাসায় পড়ে আলেম হয়েছেন,সেসব মাদ্রাসা পরিচালনার জন্য পরামর্শ দিয়ে,অর্থ দিয়ে,জায়গা দিয়ে,ভবন করে দিয়ে, মসজিদ করে দিয়ে,মাসে মাসে ডোনেশন দিয়ে,বাৎসরিক বড় অংকের টাকা দিয়ে বছরের পর বছর এই আওয়ামরাই মাদ্রাসাগুলোকে চালিয়ে আসছে।

ইউরোপ আমেরিকার বিভিন্ন দেশে এই আওয়ামরাই দাওয়াত ও তাবলীগের কাজকে চালু করেছে।চীনে দাওয়াতের কাজ আওয়ামরাই চালু করেছে,লন্ডন, আমেরিকা,ফ্রান্সে দাওয়াত ও তাবলীগ আওয়ামরাই চালু করেছে।

এই আওয়ামদের মেহনতের কারনেই ইউরোপ আমেরিকায় আজ লক্ষ লক্ষ ইহুদী,খ্রিষ্টান ইসলাম গ্রহণ করেছে।সেখানে আজ হাজার হাজার মসজিদ মাদ্রাসা এই আওয়ামরাই গঠন করেছে।

নূরানী মাদ্রাসা,কওমী মাদ্রাসাকে ইউরোপ,আমেরিকা,আফ্রিকার বনজঙ্গলসহ সারা বিশ্বের আনাচে কানাচে এই আওয়ামরাই পৌচিয়েছে।
সূতরাং এই আওয়ামদের বিরুদ্ধে আপনার জবানকে হেফাজত করা খুবই জরুরী।

তবে আমরা অবশ্য ওলামাদের কে আল্লাহ র জন্য ভাল বাসি। ওলামারা আমাদের গর্ব।
ওলামারা আমাদের অহংকার।
ওলামারা আমাদের হাতিয়ার।
ওলামারা আমাদের মাথার তাজ।
এই জন্যই বলছি আওয়াম জনতাকে দুষারূপ করা ঠিক হবে না।
তাই আপনারা আপনাদের জবান কে হিফাজত করুন।
তাহলে দেখবেন আওয়াম মানুষের জবানও ভাল হয়ে যাবে।
আল্লাহ আমাদের এক ও নেক হওয়ার তৌফিক দান করুন।

Advertisements

2 thoughts on ““প্লিজ, আওয়াম মানুষের তাবলীগকে কলংকিত করবেন না।”

Leave a Reply